মেনু নির্বাচন করুন

পিংক ভিলেজ

ü   খুলনা বিভাগীয় কমিশনার জনাব লোকমান হোসেন মিয়া স্যার ও জেলা প্রশাসক জনাব মো: আলী আকবর স্যারের নির্দেশনা ও অনুপ্রেরণায় টিনের ঘরের পরিবর্তে সুদর্শন টেকসই পাকা ঘর করার  সিদ্ধান্ত ।
ü সে আলোকে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও জনসাধারণের সঙ্গে মতবিনিময় করলে তারাও উৎসাহিত হন। এছাড়া সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও বিয়ষটি সমাদৃত হয়।
üউপজেলার মাসিক সভায় উপস্থাপন করা হয়।
ü প্রকল্প বাছাই ও বাস্তবায়ন কমিটি কর্তৃক অনুমোদিত হয়।
ü সে অনুসারে ইটের সুদৃশ্য ঘর প্রস্তুত করা হয়।

বর্তমান গ্রামের মানুষের আর্থসামাজিক পরিবর্তন হচ্ছে এমনকি প্রান্তি

জনগোষ্ঠীও কিছু টাকা জমাতে পারলেই টিন না কিনে ইট ক্রয় করে ।

    কারণ ইটের বাড়ির সামাজিক মূল্য অনেক বেশি।

 

  গুচ্ছগ্রাম প্রকল্পে দুটি রুমের একটি ইটের ঘরের ব্যবস্থা করা এত

    অতিরিক্ত খুব বেশি টাকা প্রয়োজন হবে না। খুব ভালভাবে দুই

    রুমের ইটের ঘর তৈরী করতে ১,৬০,০০০/- টাকার উপরে   দরকার হবে না।


Share with :

Facebook Twitter